বিভাগের আর্কাইভঃ আইন, অধিকার ও সেবা

এজাহার (এফ আই আর) কী, কেন, কোথায় এবং কিভাবে করে

FIR

কেউ কোনো কারণে কোনো ক্ষতির সম্মুখীন হলে কিংবা কোনো অপরাধের শিকার হলে প্রথমেই সবার ভাবনায় আসে যে কাছের থানায় গিয়ে প্রতিকার চাইতে হবে। কিন্তু থানায় গিয়ে কীভাবে প্রতিকার চাইতে হবে, তা নিয়ে অনেকেই বিভ্রান্তিতে থাকেন। বিশেষ করে থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) নাকি এজাহার করবে, তা নিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। অনেক সময় বড় কোনো অপরাধ ঘটলেও অনেকে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। অনেকে পুলিশের কাছে যাওয়াকে ঝামেলা মনে করেন। আবার গেলেও পুলিশের কাছে ঠিকঠাক উপস্থাপন করতে পারে না। ফলে অনেকেই আইনের সঠিক প্রতিকার নেওয়া থেকে বঞ্চিত হন। এতে অপরাধীরা সুযোগ পায় এবং নীরিহ মানুষেরা বারবার অপরাধের স্বীকার হয়।
ফৌজদারী অপরাধের ক্ষেত্রে এজাহার দায়েরের মাধ্যমে মামলার সূচনা হয়। তাই পরবর্তীতে মামলার গতিপ্রকৃতি নির্ধারণে এজাহার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দলিল হিসেবে পরিগণিত হয়। ঠিকমতো এজাহার দায়ের করতে না পারায় প্রতিনিয়ত অনেকেই বিচার পাবার অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এজাহার রুজু করার জন্য পর্যাপ্ত আইনি জ্ঞান ও দক্ষতা না থাকায় প্রায়ই আমাদের মামলা সংক্রান্ত নানান রকম ঝামেলাপূর্ন পরিস্থিতির শিকার হতে হয়। তাছাড়া আইনগতভাবে এজাহার লেখার পদ্ধতিও যথেষ্ট জটিল। বিস্তারিত 

জেনারেল ডায়েরি (জিডি) কী, কেন, কোথায় এবং কিভাবে করবেন

GD

জিডি শব্দটি জেনারেল ডায়েরীর সংক্ষিপ্ত রুপ। প্রতিটি থানায় এবং ফাঁড়িতে একটি ডায়েরীতে ২৪ ঘন্টার খবর রেকর্ড করা হয়। সাধারণ ডায়েরি বা জেনারেল ডায়েরি (জিডি) অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয়। জিডি বা জেনারেল ডায়েরি হলো কোনো অপরাধ বা ক্ষতি সংঘটনের আশঙ্কাজনিত বিবরণ। বিভিন্ন রকমের সমস্যার কারণে আমাদের পুলিশের কাছে যেতে হয়। কিছু বিশেষ কারণে নিকটস্থ থানায় পুলিশের কাছে ঘটনার সাধারণ বিবরণ লিখিত আকারে পেশ করাকে সাধারণ ডায়েরি বা জিডি করা বলা হয়। প্রাপ্তবয়স্ক যে কোনো ব্যক্তি থানায় এটি করতে পারবেন। সাধারণত ডায়েরি (জিডি) করার উদ্দেশ্য হলো সমস্যার বিষয়ে থানাকে অবগত করা যাতে ঘটনার গুরুত্ব অনুসারে পুলিশ ব্যবস্থা নিতে পারে। বিস্তারিত 

বাংলাদেশের বিচার বিভাগ

রাষ্ট্রের বিভিন্ন কাজ সম্পাদনের জন্য বাংলাদেশ সরকারের তিনটি বিভাগ রয়েছে: আইন বিভাগ, শাসন বিভাগ ও বিচার বিভাগ। সরকারের তিনটি বিভাগই গুরুত্বপূর্ণ। এদের কাজ পারষ্পরিক নির্ভরশীল ও পরিপূরক। আইনসভার আইন ও বিচার বিভাগের আদেশগুলো নির্বাহী বিভাগ বাস্তবায়ন করে। বিচার বিভাগ আইনসভা প্রণীত আইন অনুসারে আদেশ দেয়। একজন সচেতন নাগরিক হিসাবে দেশের বিচার বিভাগ সম্পর্কে সম্যক ধারণা থাকা আবশ্যক। এখানে বাংলাদেশের বিচার বিভাগের গঠন প্রণালি ও শ্রেণীবিভাগের একটি বেসিক ধারণা দেওয়া হল। বিস্তারিত 

গুরুত্বপূর্ণ আইন, সনদ ও বিধিসমূহ

একজন সচেতন নাগরিকের আন্তর্জাতিক ও দেশের মৌলিক আইন-কানুন সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা থাকা প্রয়োজন। কারণ এতে নিজের ও অপরের অধিকার ও কর্তব্য সম্পর্কে যেমন সচেতন হওয়া যায় তেমনি সামাজিক ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায়ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা যায়। গুরুত্বপূর্ণ আইন ও সনদ ও বিধিসমূহের তালিকা ও বিস্তারিত জানার জন্য লিঙ্ক এখানে দেওয়া হল: বিস্তারিত